Sony Norde: i could not play as desired in kolkata derby: sony norde – ব্যর্থতা স্বীকার সোনির

এই সময়: ফিরতি বড় ম্যাচে তিনি যে চূড়ান্ত ফ্লপ, কবুল করে নিলেন সোনি নর্দে।

সোমবার সকালে মোহনবাগান মাঠে প্র্যাক্টিসের পর হাইতিয়ান উইঙ্গার রাখঢাক না করেই বলে দিয়েছেন, ‘বড় ম্যাচে আমাকে ঘিরে অনেক প্রত্যাশা ছিল। চোট সারিয়ে ফিরে এসে আমি ভালো খেলছিলামও। কিন্তু সত্যি কথা বলতে কী, আমি কিছুই করতে পারিনি।’

মোহনবাগানের ০-২ হারের দুটো কারণ তুলে ধরেছেন সোনি। প্রথমটা, ইউতা কিনোয়াকির আচমকা চোট পাওয়াটা। দ্বিতীয়টা, গোল বাতিল।

প্র্যাক্টিসে ডার্বির দু’দিন আগেই চোট পেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু তা নিয়ে তেমন দুশ্চিন্তা ছিল না। রবিবার বিকেলে ম্যাচে নামার আগে ওয়ার্মআপ করার সময় ফের চোট পান ইউতা। যার পর আর খেলতে পারেননি। সোমবার প্র্যাক্টিস সেরে বাড়ি ফেরার সময় প্রচারমাধ্যমকে সোনি বলেছেন, ‘ইউতার চোটের জন্যই আমাদের যাবতীয় পরিকল্পনা ঘেঁটে গিয়েছিল। ওকে ঘিরে একটা নির্দিষ্ট পরিকল্পনা ছিল আমাদের। সেটা করা যায়নি। ইউতা না থাকার জন্য মাঝমাঠ সে ভাবে কার্যকর ভূমিকা নিতে পারেনি।’ সঙ্গে জুড়েছেন, ‘সেই সঙ্গে গোল বাতিলটাও মুশকিলে ফেলে দেয়। ওটা হয়ে গেলে সমতা ফেরাতে পারতাম। তাতে খেলাটা অন্য রকম হতে পারত।’

কাল, বুধবার গোকুলমের বিরুদ্ধে খেলবে মোহনবাগান। ডার্বি হারের ধাক্কা সামলে খালিদ জামিল টিম তৈরি করার চেষ্টা করছেন। সোনি বলেই দিয়েছেন, ‘আমাদের আর যাই হোক না কেন, চ্যাম্পিয়ন হওয়ার কোনও সম্ভাবনা নেই। এটা যদি বলি, লোকে বলবে, মিথ্যে বলছি।’

আপাতত মোহনবাগানের লক্ষ্য প্রথম চারে থেকে আই লিগ শেষ করা। যাতে সুপার কাপ খেলার ছাড়পত্র পায় টিম। সোনির কথায়, ‘প্রথম চারে শেষ করাটাই একমাত্র লক্ষ্য আমাদের।’ একই সঙ্গে ইস্টবেঙ্গলের প্রশংসা করেছেন তিনি। ‘ইস্টবেঙ্গল অনেক কমপ্যাক্ট ফুটবল খেলেছে। এক-একটা বলের জন্য ওরা তিন জন মিলে ঝাঁপিয়েছে।’




Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

শিক্ষক দিবস রচনা – Teachers Day

শিক্ষক দিবস রচনা – Teachers Day – Chalo Kolkata ...